আধুনিক ভারতের ইতিহাস রচনায় সরকারি নথিপত্রের ভূমিকা | মাধ্যমিক ইতিহাস

The role of official documents in the historiography of modern India


ভূমিকা: আধুনিক ভারতের ইতিহাস রচনায় যেসব উপাদান পাওয়া যায়, সেগুলির মধ্যে অন্যতম হল সরকারি নথিপত্র। দিল্লির
জাতীয় মহাফেজখানা ছাড়াও কলকাতা, চেন্নাই, মুম্বই প্রভৃতি শহরের লেখ্যাগার – গুলিতে এরূপ বহু নথিপত্র সংরক্ষিত রয়েছে। বস্তুনিষ্ঠ প্রশাসনের জন্য নথির ব্যবহার অপরিহার্য।
কয়েকটি উল্লেখযোগ্য সরকারি নথিপত্র হল –
(a) বিভিন্ন সরকারি কমিশনের প্রতিবেদন,
(b) পুলিশ, গোয়েন্দা,সরকারি আধিকারিক প্রমুখের বিভিন্ন প্রতিবেদন,
(c) বিবরণ,
(d) চিঠিপত্র প্রভৃতি।

কমিশনের প্রতিবেদন: ব্রিটিশ শাসনকালে সরকার অর্থ, শিক্ষা, আন্দোলন প্রভৃতি বিভিন্ন বিষয়ে বেশ কয়েকটি কমিশন নিয়োগ করে। এগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল——-
১) নীল কমিশন (১৮৬০)
২) ক্ষিণাত্য বিদ্রোহ কমিশন (১৮৭৬ খ্রি.),
৩) হান্টার কমিশন (১৮৮২ খ্রি.),
৪) সাইমন কমিশন (১৯২৭ খ্রি.) প্রভৃতি।

এসব কমিশনের প্রতিবেদন বা রিপোর্ট থেকে আধুনিক ভারতের ইতিহাস রচনার বহু তথ্য সংগ্রহ করা সম্ভব।

[ii] অন্যান্য প্রতিবেদন: ব্রিটিশ সরকারের পুলিশ, গোয়েন্দা ও বিভিন্ন সরকারি আধিকারিকগণ ব্রিটিশবিরোধী গণবিদ্রোহ,
জাতীয়তাবাদী আন্দোলন, বিপ্লবী আন্দোলন, গুপ্ত সমিতিগুলির কাজকর্ম প্রভৃতি বিষয়ে সরকারকে নিয়মিত প্রতিবেদন পাঠাত, যার ভিত্তিতে সরকার পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করত। এসব প্রতিবেদন আধুনিক ভারতের ইতিহাস রচনায় যথেষ্ট সহায়তা করে।

[iii] বিবরণ: সরকারের বিভিন্ন পদস্থ কর্মচারী, সেনাপতি, সরকারের ঘনিষ্ঠ ব্যক্তি প্রমুখ বিভিন্ন ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী হিসেবে পরবর্তীকালে সেইসব ঘটনার বিবরণ লিপিবদ্ধ করেছেন। এরূপ বেশকিছু বিবরণ গ্রন্থাকারে প্রকাশিত হয়েছে বা সরকারি দপ্তরে সংরক্ষিত আছে। এরূপ কয়েকটি উল্লেখযোগ্য বিবরণ হল ফরেস্ট রচিত ‘হিস্ট্রি অব দি ইন্ডিয়ান মিউটিনি’, স্যার সৈয়দ আহমদ খান রচিত ‘দি কজেস অব ইন্ডিয়ান রিভোল্ট’, কার্জনের স্বরাষ্ট্রসচিব রিজলে রচিত দিনলিপির বিবরণ, কে লেপেল গ্রিফিনের বিবরণ প্রভৃতি।

[iv] চিঠিপত্র: সরকারের বিভিন্ন দপ্তর ও আধিকারিকরা নিজেদের মধ্যে যেসব চিঠিপত্রের আদানপ্রদান করত সেগুলি
থেকে বহু ঐতিহাসিক তথ্য পাওয়া যায় | এই বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ চিঠিপত্রগুলি হল ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির চিঠিপত্র, লর্ড মেকলের চিঠিপত্র, লর্ড ডাফরিনের চিঠিপত্র, ব্রিটিশ সরকারকে দেওয়া গান্ধিজির বিভিন্ন চিঠিপত্র প্রভৃতি।

উপসংহার: সরকারি নথিপত্রগুলি আধুনিক ইতিহাস রচনার গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। ব্রিটিশ সরকারের নানা কাজ -কর্মের সাক্ষী সরকারি নথিপত্রগুলি আধুনিক ভারতের ইতিহাস রচনার কাজে বহু তথ্যের সন্ধান দিয়ে নির্ভর – যোগ্য ইতিহাস রচনায় সহযোগিতা করেছে।

The post আধুনিক ভারতের ইতিহাস রচনায় সরকারি নথিপত্রের ভূমিকা appeared first on Rlearn Education.

Welcome Visitor

Rlearn Education
error: Content is protected !!