চক্ষু : জীবজগতে নিয়ন্ত্রণ ও সমন্বয় | মাধ্যমিক জীবন বিজ্ঞান

চক্ষু : জীবজগতে নিয়ন্ত্রণ ও সমন্বয়|মাধ্যমিক জীববিজ্ঞান সাজেসন

প্রশ্ন : চক্ষুর বিভিন্ন প্রতিসারক অংশের নাম ও কাজ লেখো অথবা, চক্ষুর প্রতিসারক মাধ্যমগুলি কী কী ?

উত্তর : চক্ষুর প্রতিসারক মাধ্যমগুলি হল—১) কর্নিয়া ২) অ্যাকুয়াস হিউমর ৩) লেন্স ৪) ভিট্রিয়াস হিউমর।

প্রশ্ন : চক্ষুর বিভিন্ন অংশের নাম ও কাজ উল্লেখ করো |

উত্তর : স্ক্লেরা বা শ্বেতমন্ডল : এটি কোরয়েডকে রক্ষা করে |

কর্নিয়া : প্রতিসারক মাধ্যম হিসেবে কাজ করে |

কোরয়ড : বিচ্ছুরিত আলোকের প্রতিফলন রোধ করে এবং রেটিনাকে রক্ষা করে।

আইরিশ বা কনীনিকা : তারা রন্ধ্রকে ছোটো ও বড়ো করে চোখে আলো প্রবেশ নিয়ন্ত্রণ।

রেটিনা বা অক্ষিপট : বস্তুর প্রতিবিম্ব গঠনে সাহায্য করে।

রড কোশ : রেটিনায় রড কোশ মৃদু আলোক শোষণে সাহায্য করে |

কোন কোশ : রেটিনায় কোন কোশ উজ্জ্বল আলো ও বর্ণ শোষণে সক্ষম |

অ্যাকুয়াস হিউমর : প্রতিসারক মাধ্যম হিসাবে কাজ করে এবং চোখের অভ্যন্তরীণ চাপ নিয়ন্ত্রণ করে।

লেন্স বা মণি : আলোর প্রতিসরণ ঘটিয়ে রেটিনার ওপর ফোকাস সৃষ্টি করে

ভিট্রিয়াস হিউমর : প্রতিসারক মাধ্যম হিসাবে কাজ করে এবং চোখের অভ্যন্তরীণ চাপ নিয়ন্ত্রণ করে।

প্রশ্ন : মানুষের চোখের অক্ষিগোলকের একটি পরিচ্ছন্ন চিত্র আঁকো এবং নিম্নলিখিত অংশগুলি চিহ্নিত করো -(ক) লেন্স (খ) কর্নিয়া (গ) রেটিনা (ঘ) ভিট্রিয়াস হিউমর (ঙ) আইরিশ |

মানুষের অক্ষিগোলকের চিত্র :

প্রশ্ন : কোনো একজন মানুষ দূরের জিনিস স্পষ্ট দেখতে পেলেও কাছের জিনিস ভালোভাবে দেখতে পান না। এরকম সমস্যার কারণ ও প্রতিকার কী হতে পারে তা লেখো।

উত্তর : সমস্যার কারণ : হাইপারমেট্রোপিয়া বা হাইপেরোপিয়া।

প্রতিকারের উপায় : উত্তল লেন্সযুক্ত চশমা ব্যবহার করতে হবে।

প্রশ্ন : অক্ষিগোলকের বিভিন্ন প্রতিসারক মাধ্যমগুলির নাম ক্রমানুসারে সাজিয়ে লেখো।

উত্তর : কর্নিয়া ➪ অ্যাকুয়াস হিউমর ➪ লেন্স ➪ ভিট্রিয়াস হিউমর ।

প্রশ্ন : চোখে কোন কোন দৃষ্টিজনিত ত্রুটি সংশোধনের জন্য অবতল লেন্স যুক্ত এবং উত্তল লেন্স যুক্ত চশমা ব্যবহার করা হয়?

উত্তর : মায়োপিয়া : অবতল লেন্স হাইপারমেট্রোপিয়া : উত্তল লেন্স

প্রশ্ন : সিলিয়ারি পেশি কীভাবে লেন্সের আকারের পরিমার্জন ঘটায় তা ব্যাখ্যা করো।
অথবা, কাছের ও দূরের বস্তু দেখার জন্য তোমার চোখে যে উপযােজনগত পরিবর্তন ঘটে তা রেখাচিত্রের মাধ্যমে দেখাও।
অথবা, কম্পিউটারে স্ক্রিন দেখার ক্ষেত্রে কীভাবে উপযােজন ঘটে তা ক্ৰমিক রেখাচিত্রের মাধ্যমে দেখাও।
অথবা, গাড়ির চালকদের উপযােজন কীভাবে ঘটে তা ব্যাখ্যা করাে।

উত্তরঃ সিলিয়ারি পেশির সংকোচন প্রসারণের ফলে লেন্সের আকারের পরিমার্জন ঘটে। নীচে ছকের সাহায্যে দেখানাে হল।

কাছের বস্তু দেখার ক্ষেত্রেঃ
সিলিয়ারি পেশির সংকোচন ➩ লেন্সের বক্রতা বৃদ্ধি ➩ লেন্সের পুরুত্ব বৃদ্ধি ➩ লেন্সের ফোকাস দৈর্ঘ্য হ্রাস ➩ রেটিনায় বস্তুর প্রতিবিম্ব গঠন।

দূরের বস্তু দেখার ক্ষেত্রে :
সিলিয়ারি পেশির শিথিলীকরণ ➩ লেন্সের বক্রতা হ্রাস ➩ লেন্সের পুরুত্ব হ্রাস ➩ লেন্সের ফোকাস দৈর্ঘ্য বৃদ্ধি ➩রেটিনায় বস্তুর প্রতিবিম্ব গঠন।

প্রশ্ন : প্রাত্যহিক জীবনে উপযোজনের ভূমিকা লেখো |

উত্তরঃ মানুষের চোখের লেন্সের ফোকাস দৈর্ঘ্য প্রয়োজনমত পরিমার্জন করার পদ্ধতিকে উপযোজন বলে ৷

উপযোজনের ভূমিকা : ১) পথচারিদের রাস্তা পারাপারের সময় লেন্সের উপযোজন সঠিকভাবে না হলে দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে। ২) রাস্তা পারাপারের সময় ট্রাফিক সিগন্যাল বা পথনির্দেশ সঠিকভাবে দেখার জন্য সঠিক সময়ে লেন্সের উপযোজন না ঘটলে দুর্ঘটনা এড়ানো যায় না।

প্রশ্নঃ অক্ষি গোলকের লেন্স ও রেটিনার অন্তর্বতী প্রকোষ্ঠে অবস্থিত তরলটির কাজ কী ?

উত্তরঃ ভিট্রিয়াস হিউমর- প্রতিসারক মাধ্যম হিসাবে কাজ করে।

প্রশ্ন : অশ্রু গ্রন্থি কোথায় অবস্থিত ? এর কাজ কী? অশ্রুতে কোন উৎসেচক বা এনজাইম থাকে ? এর কাজ কী?

উত্তর : অশ্রু গ্রন্থি উভয় চোখের অক্ষিকোটরের উর্ধ্বতলে অবস্থিত। কাজ : অশ্রু নিঃসরণ করে চোখকে সিক্ত রাখা এর কাজ। অশ্রুতে লাইসোজাইম নামক উৎসেচক থাকে। কাজ: এই এনজাইম ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে।

প্রশ্ন : চোখের কোন কোন দৃষ্টিজনিত ত্রুটি সংশোধনের জন্য অবতল লেন্সযুক্ত এবং উত্তল লেন্স যুক্ত চশমা ব্যবহার করা হয় ?

উত্তরঃ মায়োপিয়া– অবতল লেন্স হাইপারমেট্রোপিয়া– উত্তল লেন্স

প্রশ্ন : মানুষের অক্ষিগোলাকের লেন্সের একটি কাজ লেখো

উত্তরঃ আলোর প্রতিসরণ ঘটিয়ে রেটিনার উপর ফোকাস সৃষ্টি করা।

প্রশ্ন : পিউপিল বা তারারন্ধ্র কী? এর কাজ লেখো।

উত্তর : আইরিশের কেন্দ্রে যে ছিদ্র দিয়ে আলো প্রবেশ করে তাকে তারারন্ধ্র বলে।

কাজ : তারারন্ধ্র দিয়ে চোখে আলো প্রবেশ করে।

চক্ষু : জীবজগতে নিয়ন্ত্রণ ও সমন্বয়|মাধ্যমিক জীববিজ্ঞান সাজেসন

প্রশ্ন :রেটিনায় উপস্থিত আলোকগ্রাহী কোশ ও রঞ্জকের নাম লেখো।

উত্তর : আলোকগ্রাহী কোশ : রড কোশ ও কোন কোশরঞ্জক : সায়ানোপসিন (বর্ণ চিনতে সাহায্য করে) এবং আয়োডোপসিন ( উজ্জ্বল আলোয় দেখতে সাহায্য করে )।

প্রশ্ন: একনেত্র ও দ্বিনেত্র দৃষ্টি কাকে বলে ? উদাহরণ দাও।

উত্তর : যখন দুটি চোখ দিয়ে একসঙ্গে একই বস্তুর প্রতিবিম্ব দেখা যায় তাকে দ্বিনেত্র দৃষ্টি বলে। যেমন-মানুষ, পেঁচা ইত্যাদি

যখন দুটি চোখ দিয়ে দুটি আলাদা বস্তুর প্রতিবিম্ব দেখা যায় তাকে একনেত্র দৃষ্টি বলে।যেমন-নোরু, ব্যাং প্রভৃতি।

প্রশ্নঃ চক্ষু সম্পর্কিত বিভিন্ন রোগের পরিচয় দাও

মায়োপিয়া বা নিকটবদ্ধ দৃষ্টি : (Short-sightendness)

যে দৃষ্টিতে দূরের দৃষ্টি ব্যাহত হয় , কিন্তু নিকটের দৃষ্টি ঠিক থাকে, তাকে মায়োপিয়া বলে।

কারণ : চক্ষুগোলকের ব্যাস স্বাভাবিকের তুলনায় বর্ধিত হওয়ার ফলে বস্তুর প্রতিবিম্ব রেটিনার সামনে পড়ে, ফলে দূরের বস্ত দেখা যায় না।

প্রতিকারের উপায়ঃ অবতল লেন্স যুক্ত চশমা ব্যবহার করতে হবে।

হাইপারমেট্রোপিয়া(Hyperopia):

যে দৃষ্টিতে নিকটের দৃষ্টি ব্যাহত হয় , কিন্তু দূরের দৃষ্টি ঠিক থাকে, তাকে হাইপারমেট্রোপিয়া বলে।

কারণ : চক্ষুগোলকের ব্যাস স্বাভাবিকের তুলনায় ছোটো হওয়ার ফলে বস্তুর প্রতিবিম্ব রেটিনার পিছনে পড়ে, ফলে কাছের বস্তু দেখা যায় না।

প্রতিকারের উপায়ঃ উত্তল লেন্সযুক্ত চশমা ব্যবহার করতে হবে

প্রেসবায়োপিয়া : সাধারণত 40 বছরের বেশি বয়সী লোকেদের দেখা যায়

কারণ : লেন্স এর স্থিতিস্থাপকতা নষ্ট হয়ে যাওয়ায় কাছের বস্তু – স্পষ্টভাবে দেখতে পায় না ।

প্রতিকারের উপায়: বাইফোকাল লেন্স যুক্ত চশমা ব্যবহার করতে হবে ।

প্রশ্ন :পীত বিন্দু (Yellow spot) ও ম্যাকুলা লুটিয়া কী?
তারারন্ত্রের বিপরীতে সরলরৈখিক ভাবে রেটিনায় যে হলুদ বর্ণের বিন্দুটি স্থান দেখা যায় তাকে পীত বিন্দু বলে।
এর কেন্দ্র স্থলে সামান্য অবতলাকৃতি যে খাঁজে কেবলমাত্র কোন কোশ বর্তমান তাকে ম্যাকুলা লুটিয়া বলে।

প্রশ্ন : অন্ধ বিন্দু (Blind spot) কী ?
পীত বিন্দুর নীচে রেটিনার যে অংশ থেকে অপটিক স্নায়ু তৈরি হয় তাকে অন্ধ বিন্দু বলা হয়। এরূপ নামকরণের কারণ হল এই অংশে কোনাে প্রকার রঞ্জক থাকে না তাই অন্ধ বিন্দুতে বস্তুর কোনাে প্রতিবিম্ব সৃষ্টি হয় না।

প্রশ্ন : কনজাংটিভাইটিস কী ?
কর্ণিয়ায় উপরিস্থিত যে স্বচ্ছ আবরণ তাকে কনজাংটিভা বলে। এই কনজাংটিভার প্রদাহকে কনজাংটিভাইটিস বলে। সাধারণত ঘর্ষণ জনিত কারণে ভাইরাসের আক্রমণে এই রকম রােগ হয়। এই রােগে চোখ লাল হয়, ফুলে ওঠে ও অনবরত অশু ক্ষরণ হতে থাকে। চোখে ময়লা বা পিছুটি জমে গিয়ে চোখ খুলতে অসুবিধাও হতে পারে।

Welcome Visitor

Rlearn Education
error: Content is protected !!