সমুদ্রস্রোত সৃষ্টির প্রধান কারণ বা নিয়ন্ত্রক : মাধ্যমিক

সমুদ্রস্রোত সৃষ্টির নিয়ন্ত্রক : [মাধ্যমিক 2023]

পৃথিবীর আবর্তন গতি, বায়ুপ্রবাহ, সমুদ্র জলের লবনতা ঘনত্ব ও উষ্ণতার পার্থক্যের জন্য সমুদ্রের ওপরের জলরাশি নিয়মিতভাবে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে প্রবাহিত হয়। সমুদ্রজলের এই গতিকে সমুদ্রস্রোত বলে।

নানান কারণে সমুদ্রস্রোতের সৃষ্টি হয়। উল্লেখযোগ্য কারণ গুলি হল-

1) নিয়ত বায়ুপ্রবাহ : নিয়ত বায়ুপ্রবাহ সমুদ্রস্রোত সৃষ্টির প্রধান কারণ। পশ্চিমা বায়ু, আয়ন বায়ু ও মেরু বায়ুর প্রভাব অনুযায়ী প্রধান প্রধান সমুদ্র স্রোত গুলির সৃষ্টি হয়।

2) পৃথিবীর আবর্তন গতি : পৃথিবীর আবর্তন গতির ফলে ফেরেলের সূত্রানুসারে সমুদ্রের জল উত্তর গোলার্ধের ডান দিকে বেঁকে যায়। দক্ষিণ গোলার্ধে বাম দিক বেঁকে যায় এর ফলে সমুদ্রস্রোত সৃষ্টি হয়।

3) সমুদ্র জলের লবনতা পার্থক্য : সমুদ্র জলের লবনতা পরিমাণ সর্বত্র সমান হয় না। অধিক লবণাক্ত জল বেশি ভারী বলে তার ঘনত্ব বেশি হয়। বেশি ঘনত্বের জল কম ঘনত্ব জলের দিকে প্রবাহিত হয় ও সমুদ্রস্রোতের সৃষ্টি হয়।

4) সমুদ্রজলের উষ্ণতার পার্থক্য : উষ্ণ মন্ডলের সমুদ্রজল বেশি উষ্ণ হয়। এই জলের উপরের অংশ দিয়ে পৃষ্ঠ প্রবাহ রূপে মেরু অঞ্চল বা শীতল অঞ্চলের দিকে প্রবাহিত হয়। উষ্ণমন্ডলের এই ঘাটতি পূরণ করার জন্য মেরু অঞ্চল থেকে শীতল ও ভারী জল জলের নিচের অংশ দিয়ে আন্তঃপ্রবাহ বা অন্তস্রোত রূপে উষ্ণমন্ডল এর দিকে প্রবাহিত হয়। এইভাবে উষ্ণ ও শীতল সমুদ্রস্রোত সৃষ্টি হয়।

5) স্থলভাগের অবস্থান : সমুদ্রস্রোতের প্রবাহ পথে কোনো মহাদেশ ও দ্বীপ থাকলে সমুদ্রস্রোত তাতে বাধা পায় ও গতিপথ পরিবর্তন করে। এর প্রভাবে সমুদ্রস্রোত একাধিক শাখায় বিভক্ত হয়।

Rlearn Education
error: Content is protected !!