ভারতের ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থা

Indian Payment and settlement systems|Payment and settlement systems: Payment and settlement systems in India are used for financial transactions. They are covered by the Payment 000qa00 Settlement Systems Act, 2007 (PSS Act), legislated in December 2007 and regulated by the Reserve Bank of India and the Board for Regulation and Supervision of Payment and Settlement Systems.

ভারতের পেমেন্ট ও সেটেলমেন্ট ব্যবস্থা:

ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক ভারতের সমগ্র অর্থনৈতিক ব্যবস্থার নিয়ন্ত্রক।The Payment and settlement systems Act, 2007′ অনুযায়ী ভারতের পেমেন্ট ও সেটেলমেন্ট ব্যবস্থা নিয়ন্ত্রিত হয়। এই আইন ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ককে পেমেন্ট ও সেটেলমেন্ট ব্যবস্থাকে নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা প্রদান করে। এই আইন ‘netting’ ও ‘settlement finally’-র আইনি ভিত্তিতে প্রদান করে।

‘The payment and settlement systems Act, 2007’ অনুযায়ী RBI দুটি কমিটি গঠন করেছে।
(1) Board for Regulation and Supervision of payment and settlement systems (BPSS, 2008) (2) Payment and settlement systems Regulations, 2008.

Board for Regulation and supervission of payment and settlement systems (BPSS, 2008)— RBI-এর সেন্ট্রাল বাের্ড অফ ডিরেক্টররা এই কমিটি গঠন করেছেন।
এটি পেমেন্ট ও সেটেলমেন্ট সংক্রান্ত বিষয়ে সাবকমিটি ও অ্যাডভাইজরি কমিটির ক্ষমতা প্রয়ােগ ও আইনি বিষয়গুলির তত্ত্বাবধান করবে।

Payment and settlement system & Regulation, 2008 – এটি পেমেন্ট ব্যবস্থা, অথরাইজেশন, রিটার্নস, ডকুমেন্টস, অ্যাকাউন্টস ও ব্যালেন্স শিট সংক্রান্ত বিষয়গুলির তত্ত্বাবধান করে।


নিম্নে ভারতে প্রচলিত বিভিন্ন ধরনের পেমেন্ট ও সেটেলমেন্ট ব্যবস্থা সম্পর্কে আলােচনা করা হল—

Clearing Corporation of India Limited (CCIL) :
✹নেগােশিয়েটেড ডিলিং সিস্টেম-এ (NDS)-এ ট্রেজারি বিল সহ যে সকল গভর্মেন্ট সিকিউরিটিজের ট্রেনিং বা রিপাের্টিং করা হয় সেগুলির নিশ্চিত সেটেলমেন্ট CCIL-এর মাধ্যমে সম্পন্ন হয়।
✹সিকিউরিটিজ-এর ক্রয় বিক্রিয়ের ক্ষেত্রে ‘CCIL-এর ভূমিকা অনবদ্য কারণ এর মাধ্যমে সেটেলমেন্ট হলে ‘ক্রেডিট রিস্ক’ এর সম্ভাবনা
অনেকাংশেই হ্রাস পায়। CCIL উন্নত মানের রিস্ক ম্যানেজমেন্ট পরিষেবা প্রদান করে যেমন ‘Mark to market’, ‘margin maintenance’ এবং ‘guranteed fund’।

✹’Delivery versus Payment II (DVP -II)’ পদ্ধতির মাধ্যমে CCIL-পেমেন্ট সেটেলন্টে হয়। এক্ষেত্রে সিকিউরিটিজগুলিকে তাদের মােট মূল্যের (Gross basis) ভিত্তিতে ‘সেটল করা হয় ও মােট পুঁজিকে নিট মূল্যের (net basis) ভিত্তিতে সেটল করা হয়।

ন্যাশনাল ইলেকট্রনিক ফান্ড ট্রান্সভার (NEFT)
✹এই ব্যবস্থার ইলেকট্রনিক মাধ্যমে নির্দিষ্ট একটি ব্যাঙ্কের শাখা থেকে ভারতের যে কোনাে জায়গায় স্থিত অন্য একটি ব্যাঙ্কের শাখায় কোনাে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানাে যাবে।
✹সােম থেকে শুক্র ও প্রথম এবং তৃতীয় শনিবার ঘণ্টা প্রতি 11 টি ব্যাচে (সকাল 9টা -সন্ধ্যা ৭টা) NEFT-এর মাধ্যমে সেটলমেন্ট হয়। দ্বিতীয় এবং চতুর্থ শনিবার, ব্যাঙ্ক ছুটির দিনে NEFT -এর মাধ্যমে কোনাে সেটলমেন্ট হয় না।
✹NEFT-এর মাধ্যমে আর্থিক লেনদেনের ক্ষেত্রে কোনাে ন্যূনতম বা সর্বোচ্চ সীমা নেই।
✹NEFT-এর মাধ্যমে ফান্ড ট্রান্সফারের ক্ষেত্রে ‘Indian Financial System Code (IFSC) – এর প্রয়ােজন হয়। 11 ডিজিট বিশিষ্ট এই আলফা নিউমেরিক কোডের প্রথম 4 টি আলফা ক্যারেক্টার নির্দেশ করে ব্যাঙ্কটিকে ও শেষ 6 টি নিউমেরিক ক্যারেক্টার নির্দেশ করে ব্যাঙ্কের শাখাকে। আর মধ্যের পঞ্চম ক্যারেক্টারটি হল শূন্য।

ইলেকট্রনিক ফান্ডস ট্রান্সফার (EFT)
✹এই ব্যবস্থায় একটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে অন্য একটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ইলেকট্রনিক মাধ্যমে আর্থিক লেনদেন সম্পন্ন করা যায়। ✹এটি কোনাে একক অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠান বা বহু অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠানের মধ্যেই সম্পন্ন করা যেতে পারে। বর্তমানে, সকল রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক ও বাণিজ্যিক ব্যাঙ্কগুলিতে EFT ব্যবস্থা চালু হয়ে গেছে।
হাই ভ্যালু ক্লিয়ারিং (HVC):
✹বড় মূল্যের চেকের দ্রুত ‘ক্লিয়ারিং’ এর জন্য ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক ‘HVC’ ব্যবস্থা চালু করল। ✹এক্ষেত্রে চেকের মূল্য সাধারনত লাখ টাকা বা তার বেশী হয়। একই দিনে চেকের সেটলমেন্টের জন্য RBI এই ব্যবস্থা চালু করেছে। নির্দিষ্ট কয়েকটি ব্যাঙ্কের বিশেষ কিছু শাখাতেই এই ব্যবস্থা চালু আছে।
চেক ট্রাঙ্কেশান সিস্টেম (CTS):
✹এটি একটি ‘চেক ক্লিয়ারিং সিস্টেম। এই ব্যবস্থায় ক্লিয়ারিং হাউজ চেকের ‘ইলেকট্রনিক ইমেজ’ ও অন্যান্য তথ্য ব্যাঙ্কের শাখাগুলিতে (paying branch) প্রেরণ করে। ✹এতে Physical cheque-এর পরিমাণ কমে ও চেক কালেকশন এত গতিতে সম্পন্ন হয়।
✹এর ফলে আর্থিক লেনদেন আরও সুরক্ষিত হয়।
✹ক্লিয়ারিং সংক্রান্ত জালিয়াতির পরিমাণও হ্রাস পায়। চেক হারিয়ে যাওয়ার বিষয়টিও পূর্বাপেক্ষা নিয়ন্ত্রণে আনা গেছে।
✹এই ব্যবস্থার মাধ্যমে ‘রিকনসিলিয়েশন’ ও ‘লজিস্টিকস’ সংক্রান্ত সমস্যারও সমাধান করা সম্ভাবনার হয়েছে।

রিয়্যাল টাইম গ্রস সেটলমেন্ট- RTGS
✹এক্ষেত্রে ‘Real time’-এর ভিত্তিতে এক ব্যাঙ্ক থেকে অন্য ব্যাঙ্কে আর্থিক লেনদেন সম্পন্ন হয়।
✹RTGS- এর মাধ্যমে ফান্ড ট্রান্সফার-এর ক্ষেত্রে ‘Batch Settlement’ হয় না। এটি ‘One to one settlement’ ।RTGS-এ ট্রানজাকশনের সেটলমেন্ট হতে তাই বিলম্ব হয় না।NEFT অপেক্ষা এক্ষেত্রে দ্রুত গতিতে ফান্ড ট্রান্সফার হয়।
✹RTGS-এর মাধ্যমে আর্থিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ন্যূনতম সীমা হল 2 লক্ষ টাকা, কিন্তু এক্ষেত্রে কোনাে সর্বোচ্চ সীমা নেই।
✹সেটলমেন্টের সময় সােম থেকে শুক্র এবং সপ্তাহের প্রথম ও তৃতীয় শনিবার সকাল 9 টা – বিকেল 4.30। ব্যাঙ্কে ছুটির দিনে RTGS এর মাধ্যমে কোনাে সেটলমেন্ট হয় না।

Also Read This Article : অর্থনৈতিক জালিয়াতি ও সতর্কীকরণ :Banking Scam

ইলেকট্রনিক ক্লিয়ারিং সার্ভিস (ECS)
✹এই ব্যবস্থাটি আর্থিক লেনদেনের জন্য ‘electronic payment instruction’ ব্যবহার করে। এটি দু-প্রকারের হয় – ECS credit ও ECS debit.
(i) ECS credit – এই ব্যবস্থায় যে কোনাে সংস্থা বহু সংখ্যক স্বত্বভােগীকে সুদ, ডিভিডিন্ড বা অন্য কোনাে পেমেন্ট ডিরেক্ট ক্রেডিট’ এর মাধ্যমে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে সরাসরি ট্রান্সফার করে দেয়।
(ii) ECS debit – এই ব্যবস্থায় গ্রাহকদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে বিভিন্ন ধরনের চার্জ, ইন্সিয়ােরেন্স প্রিমিয়াম, লােম ইনস্টলমেন্ট, ইলেকট্রিসিটি বিল ইত্যাদি ‘ডিরেক্ট ডেবিট’ এর মাধ্যমে কেটে নেওয়া হয়।ন্যাশনাল

ইলেকট্রনিক ক্লিয়ারিং সার্ভিস (NECS):
✹এর মাধ্যমে একক অর্থপ্রেরকের অ্যাকাউন্ট থেকে ‘single debit’ করে বহু গ্রাহকের অ্যাকাউন্টে ‘credit’ দেওয়া হয়।
✹অপরদিকে বহু ঋণগ্রহীতার অ্যাকাউন্ট থেকে লােন ইনস্টলমেন্ট ডেবিট করে একক স্পনসর ব্যাঙ্ককে ‘Single credit’ দেওয়া হয়।
✹ন্যাশনাল পেমেন্ট কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া (NPCI) কোম্পানি অ্যাক্ট, 2013 র ৪ নং ধারা অনুযায়ী NPCI 2008 সালের ডিসেম্বরে স্থাপিত হয়েছে এবং ব্যাবসা শুরু করেছে 2009 সালের এপ্রিল মাসে। এটি ভারতে একটি জাতীয় পর্যায়ের রিটেল পেমেন্ট সিস্টেম এর পরিকাঠামাে প্রদান করে। এটি ‘Unified Payment Interface (UPI) এর মাধ্যমে সারা ভারতে e-payment পরিষেবা প্রদান করে। সম্প্রতি এটি। ‘Rupay’ কার্ড পেমেন্ট নেটওয়ার্ক-ও চালু করেছে যার ফলে আন্তর্জাতিক কার্ড নেটওয়ার্ক ব্যবস্থার উপর নির্ভরতা অনেকাংশে হ্রাস পেয়েছে।

ভারত বিল পেমেন্ট সিস্টেম (BBPS):
✹ভারত বিল পেমেন্ট সিস্টেম একটি সুংসহত ও ‘অন্তৰ্চালিত পেমেন্ট ব্যবস্থা যা আর্থিক লেনদেনকে ত্বরান্বিত করে।
✹NPCI একটি অনুমােদিত ভারত বিল পেমেন্ট সেন্ট্রাল ইউনিট (BBPCU) হিসেব কাজ করে। এটি সমস্ত ব্যবসার মান, পদ্ধতি ও নিয়ম নীতি ও নির্ধারণ করে। BBPS ব্যবস্থার সমস্ত আর্থিক লেনদেনের ক্লিয়ারিং ও সেটলমেন্ট NPCI-এর মাধ্যমে নিষ্পন্ন হয়। ক্যাশ, চেক ও EFT-র মাধ্যমে BBPS ব্যবস্থায় আর্থিক লেনদেন করা হয়।

Comments 1

Welcome Visitor

Rlearn Education
error: Content is protected !!